মৎস্য অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

মহাপরিচালক

আবু সাইদ মোঃ রাশেদুল হক

মহাপরিচালক

মৎস্য অধিদপ্তর, বাংলাদেশ

 

কৃষিবিদ আবু সাইদ মোঃ রাশেদুল হক ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মৎস্য অধিদপ্তর বাংলাদেশ-এর মহাপরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। এর পূর্বে তিনি অত্র অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

কৃষিবিদ আবু সাইদ মোঃ রাশেদুল হক বিসিএস (মৎস্য) ক্যাডারের একজন সদস্য। তিনি ১৯৮৪ সালের নিয়মিত ব্যাচে বিসিএস (মৎস্য) ক্যাডারে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হিসেবে মৎস্য অধিদপ্তরে যোগদান করেন। সুদীর্ঘ চাকরি জীবনে তিনি মৎস্য অধিদপ্তরের খামার ব্যবস্থাপক, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা, প্রকল্প পরিচালক, উপপরিচালক, প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (পরিচালক) এবং অতিরিক্ত মহাপরিচালক হিসেবে সফলতা ও দক্ষতার সাথে তাঁর দায়িত্ব পালন করেন।

 

তিনি ২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৬০ সালে বগুড়া জেলার সোনাতলা উপজেলাধীন রাণীপাড়া গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তাঁর পিতামাতার চতুর্থ সন্তান। তিনি বগুড়া সেন্ট্রাল উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৭৬ সালে এসএসসি, সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া থেকে ১৯৭৮ সালে ১ম বিভাগে এইচএসসি এবং ১৯৭৮-৭৯ সেশনে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদে ভর্তি হয়ে ১৯৮২-৮৩ সালে বিএসসি ফিশারিজ (সম্মান) ডিগ্রী অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি থাইল্যান্ডের এশিয়ান ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজী (এআইটি) থেকে এআইটি ডিপ্লোমা এবং বিএইউ-স্টার্লিং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একোয়াকালচার রিসোর্সেস ডেভেলপমেন্ট বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।

 

তাঁর লিখিত মৎস্য প্রযুক্তি বিষয়ক অসংখ্য জনপ্রিয় প্রবন্ধ বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকা ও সংকলনে প্রকাশিত হয়। তিনি সরকারী দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে বিভিন্ন স্টাডি ট্যুর, উচ্চতর শিক্ষা ও প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের জন্য স্কটল্যান্ড, থাইল্যান্ড ও ফিলিপাইন ভ্রমণ করেন। তিনি কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন বাংলাদেশ এর আজীবন সদস্য এবং বিসিএস (মৎস্য) ক্যাডার এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ ফিশারিজ রিসার্চ ফোরাম এর সদস্য।

 

তিনি ১৯৮৮ সালে নিগার সুলতানা এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক।

 

 


Share with :

Facebook Facebook